মেঘ বসুর কবিতা

 

চুম্বন

কাচের মতো ভেঙে ফেলব তোকে

কুড়িয়ে নেব আকাশ ভরা তারা

চাঁদের মায়া পড়বে ঝরে ঝরে

পায়ের জাদু নুপূরখানি তোর

আমি সহজ সাঁতার হব, মেয়ে

বর্ষা হয়ে নামব সরোবর

গভীর থেকে গভীর ছুঁয়ে যাব

ঠোঁটের পরে থাকবে দুটি ঠোঁট।

 

ক্ষয়

সেতু থেকে পা পিছলে, আলো পড়ে গেল জলে

তারপরনামে সন্ধ্যাকাল

কুপ্রস্তাবে জড়ো হয় রাত, দুটি হাত কাঁপে থরো থরো

সমস্ত দিনের শেষে, জমা এই ক্ষয়, হারানো লেখার মতো।

 

কলঙ্ক

আগুন পেল তোমাকে আর

মন্দ হল চাঁদ

শব্দ পেল নষ্ট কবি

জগতে অপবাদ!

 

চলভাষ

কথা কোনোদিন ফুরোবার নয়

জমানো টাকার মতো উদাসীন কারও হাতে

যে ছিল দাঁড়িয়ে একা

কথা তাকে নিয়ে গেছে ডেকে

কথা তার নিয়তির মতো

হার মানে সময়, ব্যবধি

চারদিক এত কথা দিয়ে ভরা,

প্রবণতা দুষণের

ক্লান্তির রুধির মুখে তুলে

খুঁজে মরি ক্ষণিক স্তব্ধতা

 
 
top